মুলতান সুলতান্সের হঠাৎ ব্যাটিং বিপর্যয়, জয় পেল ইসলামাবাদ ইউনাইটেড

পাকিস্তান সুপার লিগের (পিএসএল) গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে মোহাম্মদ ওয়াসিমের ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে জয় পেয়েছে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকা দল ইসলামাবাদ ইউনাইটেড। মুলতান সুলতান্সকে তারা হারিয়েছে ৪ উইকেটের ব্যবধানে। অন্যদিকে চার দলের সাথে সমান ১০ পয়েন্ট নিয়েও রান রেটে সবার উপরে থাকায় ২য় স্থান নিশ্চিত করেছে মুলতান সুলতান্স।

প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে শান মাসুদ ও অধিনায়ক মোহাম্মদ রিজওয়ানের কল্যাণে দারুণ সূচনা করেছিল সুলতান্স। তবে ওয়াসিমের চমকপ্রদ বোলিংয়ে বিনা উইকেটে ৯৩ রান থেকে ১৪৯ রানে অলআউট হয়ে যায় সুলতান্স। শান মাসুদ সর্বোচ্চ ৫৯ এবং রিজওয়ান করেন ২৬ রান।

ইসলামাবাদ ইউনাইটেডের ওয়াসিম ৪ ওভারে ৩১ রান দিয়ে মূল্যবান ৪টি উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরার পুরস্কারও আদায় করে নেন। এছাড়া ফাওয়াদ আহমেদ ও ফাহিম আশরাফ ২টি করে উইকেট নেন।

১৫০ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে ২ বল হাতে রেখে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ইসলামাবাদ ইউনাইটেড। অধিনায়ক শাদাব খান সর্বোচ্চ ৩৫ রান করেন। এছাড়া হুসাইন তালাত ৩৪, মুহাম্মদ আখলাক ২৬ এবং আসিফ আলি ২৫ রান করেন।

সুলতান্সের শাহনেওয়াজ ধানি ও উসমান কাদির ২ করে উইকেট শিকার করেন।

টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারের তালিকায় শীর্ষে আছেন সুলতান্সের শাহনেওয়াজ ধানি। অন্যদিকে ব্যাটিংয়ে রয়েছেন পাকিস্তান জাতীয় দল ও করাচি কিংসের অধিনায়ক বাবর আজম।

২১ জুন কোয়ালিফায়ারে মুখোমুখি হবে ইসলামাবাদ ইউনাইটেড ও মুলতান সুলতান্স। একইদিনে ১ম এলিমিনেটরে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে পেশোয়ার জালমি এবং করাচি কিংস। এরপর ২২ জুন ২য় এলিমিনেটরে মুখোমুখি হবে কোয়ালিফায়ারে পরাজিত দল বনাম ১ম এলিমিনেটরে জয়ী দল। ২৪ জুন অনুষ্ঠিত হবে এবারের আসরের ফাইনাল।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ
মুলতান সুলতান্সঃ ১৪৯/১০ (২০), মাসুদ ৫৯, রিজওয়ান ২৬, মাকসুদ ১২, রসৌ ২, চার্লস ১৯, হাম্মাদ ৯, সোহেল ৮, কাদির ৪, উমর ০, মুজারাবানি ০, ধানি ০*; আলি খান ৩-০-২৬-০, আশরাফ ৪-০-২৪-২, ওয়াসিম ৪-০-৩১-৪, ফাওয়াদ ৪-০-২৫-২, শাদাব ৪-০-৩১-১, ইফতিখার ১-০-১১-১

ইসলামাবাদ ইউনাইটেডঃ ১৫০/৬ (১৯.৪), আমিন ১৩, আখলাক ২৬, শাদাব ৩৫, তালাত ৩৪, আসিফ ২৫, কিং ৫, ইফতিখার ৬*, ওয়াসিম ০*; সোহেল ৪-০-৩৬-০, মুজারাবানি ২.৪-০-১৬-১, উমর ৪-০-৪৫-১, ধানি ৪-০-২১-২, কাদির ৪-০-২২-২, হাম্মাদ ১-০-৮-০
ম্যাচ সেরাঃ মোহাম্মদ ওয়াসিম (ইসলামাবাদ ইউনাইটেড)।